সংসার ভাঙছে পূর্ণিমার!

অভিনেতা অভিনেত্রীদের বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা যেন দিন দিন বেড়েই চলছে। আর এই তালিকায় হয়তো যুক্ত হতে যাচ্ছে জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। অতিরিক্ত মিডিয়াপ্রীতি আর ফাহাদের মিডিয়াবিরাগ তাদের সম্পর্কে বড় ধরনের দেয়াল তৈরি করেছে বলে জানা গেছে।

বেশ কয়েক বছর আগে পূর্ণিমা যখন মিডিয়ায় নিয়মিত কাজ করার ঘোষণা দেন, তখন থেকেই সম্পর্কের অবনতির শুরু। স্বামীর চাপে অনেক দিন পূর্ণিমা তার শ্বশুরবাড়ি গিয়ে গৃহিণী হয়ে ছিলেন। বছর না ঘুরতেই পূর্ণিমা ফিরে এসে মিডিয়াঙ্গণে ঘোরাঘুরি শুরু করেন যা ভালোভাবে নিতে পারেননি ফাহাদ।
 
ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা যায়, সে সময় পূর্ণিমার কাছ থেকে বেশ কিছুদিন দূরে ছিলেন ফাহাদ। বছরখানেক আগে পূর্ণিমার শাশুড়ি অসুস্থ হলে তাকে নিয়ে ফাহাদই ভারতে দীর্ঘ চিকিৎসায় চলে যান। ফাহাদের অনুপস্থিতিতে পূর্ণিমা টিভিকেন্দ্রিক কাজে নিজেকে ব্যস্ত করে ফেলেন।

ছোটপর্দার দুজন বড়কর্তার হীমশীতল রুমে যাতায়াত বেড়ে যায় নায়িকার- যা খোদ পূর্ণিমিয়ানদের চোখকেও সরু করেছে। গত ৩০ জুন মালয়েশিয়ায় অন্যদের সঙ্গে একটি শো করতে যান পূর্ণিমা। সেখানে অনেকটা বাধ্য হয়েই নায়িকা তার স্বামী আর কন্যাকে নিয়ে যান। কয়েক দিন সেখানে শো ছাড়াও পারিবারিক সময়ও কাটিয়ে এসেছেন।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার আলোচিত সিনেমা ‘দহন’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েও ছেড়ে দেওয়ার পেছনে পূর্ণিমার স্বামী ফাহাদের একরোখা মনোভাবকেই দায়ী করছেন সিনেমার অনেকে। গত প্রায় চার বছর পূর্ণিমার মা আলাদা থাকছেন। এটাও নাকি তারকা দম্পতির মনোমালিন্যের ফল।

একদিকে পূর্ণিমার মিডিয়া তথা মিডিয়ার তথাকথিত ‘খান’ উপাধির দাপটীয় জৌলুসপূর্ণ জীবনের প্রতি টান, অন্যদিকে নায়িকার স্বামীর মিডিয়ার প্রতি বিরক্তি- এর ফল কী আরেকটি বিচ্ছেদের পথকে সুগম করছে? সময়ই তা বলে দেবে কি হবে।